বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
শিক্ষার্থীদের শিখন ঘাটতি নিরাময় ও ঝরে পড়া রোধকল্পে মুরাদনগরে এমপি’র মতবিনিময় সভা নবজাতক কন্যাকে আর কোলে নেয়া হলো না আতিক মুন্সীর! মুরাদনগরে মানসিক প্রতিবন্ধী নাছির হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার কুমিল্লায় বাংলাদেশ কৃষকলীগের আঞ্চলিক সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত একদা এমনই বাদল শেষের ভোরে কুমিল্লা-৭(চান্দিনা) সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে ডা: প্রাণ গোপাল দত্তকে  বিজয়ী ঘোষণা  নাঙ্গলকোটে নারী ভোটারের ব্যাপক উপস্থিতি, ইভিএম নিয়ে বিড়ম্বনা মুরাদনগরে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ফেনীতে অবৈধভাবে সিএনজি গ্যাস সরবরাহের দায়ে ১৭ জন গ্রেফতার মৃত্যুর ৯ মাস পর কবর থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার হোমনায় বিয়ে বাড়িতে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত ২০ মুরাদনগরে ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা চেষ্টায় একজন আটক এমপি বাহারের বড় ভাইয়ের ইন্তেকাল গার্মেন্টস কর্মীকে অপহরণ ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ছয় জন আটক মুরাদনগরে সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা: সাংসদের পরিদর্শন
`মধুর তোমার শেষ যে না পাই’

`মধুর তোমার শেষ যে না পাই’

বাসন্তি সাহা।। শ্রাবণের আকাশে মেঘের দেখা নেই। ঝকঝকে রৌদ্রকরোজ্জল দিন। বৃষ্টিতে স্নান করেছে সবুজ পাতারা। তার ফাঁক দিয়ে সুর্য ঝিলিক দিচ্ছে। কোথাও কোথাও নাকি শিউলিও ফুটতে শুরু করেছে। প্রায় প্রতিদিনের মতো আটপৌড়ে সকাল। দেখে বোঝার উপায় নেই আমরা একটা মহামারী অতিক্রম করছি।

 

সকালে উঠেই ইনবক্স চেক করা। মেঘদূত কোনো বার্তা নিয়ে এলো কি না?? অথবা দেখি কারও প্রোফাইল পিকচার। মুখে অপার্থিব হাসি। এইসব ছবিতে জীবন উদ্দাম বাতাস বা ঝকঝকে খোলা মাঠ। বন্ধুদের ছবি দেখতে দেখতে নিজের সুন্দর সময়টাকে যত্ন করে ফিরিয়ে আনি। অনেক সময় কেটে যায় এখানে। মনে মনে ভাবি, তোমার বেড়াতে যাওয়ার সাথে আমারও একটা নিভৃত আনন্দের যোগ আছে। কখনো নিঃশ্বাস বন্ধ করা একটা বুকচাপা কষ্টও আছে। যদিও জানি, এই ছবিগুলোর বাইরে সকল মানুষের একটি আগ্নেয় জীবন আছে। সেখানে প্রেম আছে। দহন আছে । দ্রোহ আছে । কান্না আছে। তাই মানুষের মন মানুষের মনকেই চায়। এতোকিছুর পরও একই হাহাকার ভেসে আসে। কতদিন দেখা হয়নি!!!

 

বাড়ির এককোণে একটা কাঁঠালীচাঁপার গাছ ছিলো। শরতের বিকেলগুলোতে সুন্দর গন্ধ ছড়াতো। গন্ধটা ছিলো মৃদু অথচ মাতাল করা। মন্দিরের সিড়িতে বসে কাকামনি প্রায়ই জিজ্ঞেস করতো বলতো কীসের গন্ধ? আমি বলতাম কাঁঠালীচাঁপা। মাঝে মাঝে এই গন্ধটা আমার কাছে ফিরে আসে আজকাল । কতকিছুতো ফেলে এসেছি। ভুলে গেছি কতকিছু। বয়সের অভিজ্ঞতা নানান অভিজ্ঞতাকে স্পর্শ করেছে। কিন্তু সেই চাাঁপা গাছটা আর গন্ধটা এতোদিন রয়ে গেলো কী করে!! কোথায় তুলে রেখেছিলাম তাকে??

আজ যেখানে রক্ত রাখো
কাল সেখানে তৃণ
কুড়িয়ে নিয়ে গিয়েছি সব
বলিনি একদিনও! —জয় গোস্বামী

 

কিছু মানুষ সারাজীবনই একটা দূর, একটা অপলক চেয়ে থাকা, একটা মেঘলা আকাশ, তুমুল বৃষ্টি আর অনেক না বলা কথা হয়ে থেকে যায়! তাই মেঘের দিকে, বৃষ্টির দিকে, শিউলি ফুলের দিকে তাকিয়ে মনে হয় সে আসেনি ঠিকই কিন্তু সে আমার অনুভবকে ঋদ্ধ করে দিয়ে গেছে।

কিছু বাঁধা পড়িল না কেবলই বাসনা-বাঁধনে।
কেহ নাহি দিল ধরা শুধু এ সুদূর-সাধনে।

 

নিজের সাথে যুদ্ধ করে কি মানুষ জিততে পারে? নাকি যুদ্ধ নিরন্তর চলতেই থাকে। এ শেষ হবার নয়্, কারণ মন নিজে ভালোই জানে কোথায় তার জিত কোথায় তার হার। তবু নিজের কাছেও কতকিছু ঢেকে রাখতে চায়। কিন্তু মন প্রস্তরফলক। সবকিছু তাতে খোদাই করা আছে। যতই রোদ-বৃষ্টির শ্যাওলা ঢাকুক তাকে। তুমি নিজে সেটা ঠিকই পড়তে পার। চেনা আখরের লিপি তোমাকে তোমাকে ছাড়বে না। তাড়িয়ে বেড়াবে অহর্নিশ।

সে কি জানিতনা যত বড় রাজধানী
তত বিখ্যাত নয় এ হৃদয়পুর
সে কি জানিতনা আমি তারে যত জানি
আনখ সমুদ্দুর।–শক্তি চট্রোপাধ্যায়

 

জীবনের পাঠ নানাভাবে নিতে হয় দুঃখ থেকে, রোগ থেকে। হয়তো ইতিহাসে লেখা থাকবে যে আমরা প্রায় দু’বছর অবরুদ্ধ ছিলাম। অনেক মানুষের অনেকগুলো প্রিয় সম্পর্ক, স্পর্শ হারিয়ে গেছিলো তখন। আমাদের আধুনিক জীবনে মহামারী শব্দটা যেনো প্রায় বিস্মৃত হয়ে উঠেছিলো, তখনই কোভিডের ধাক্কায় পৃথিবী জুড়ে যেন স্বপ্নভঙ্গ হলো। এর আগে আামাদের আপাত সুখের জীবন ছিলো। তার মধ্যে চোখ কান বুজে ভালো থাকার একটা স্বস্তি ছিলো। মানুষের এতো এতো আবিষ্কারের পরেও আর আজ সেই চাণক্যনীতিতে দিন কাটছে-শত্রু যখন অদৃশ্য তখন নিজেকে লুকিয়ে ফেলাই বুদ্ধিমানের কাজ।

 

পৃথিবীতে বহুবার মহামারী হানা দিয়েছে । চলেছে তখনও মৃত্যমিছিল। কিন্তু সেটা নিজেদের জীবনে আসবে আমরা বোধহয় ভাবিনি। তাই জীবনের কাছে, কবিতার কাছে আরও যেনো নত হই। আরও যেনো ভেঙে পড়ি। খুব মৃদুস্বরে নিজেকে মনে মনে বলি আমি যেনো ভালো থাকি। আমরা যেনো ভালো থাকি।

 

রোগ. মৃত্যু হয়তো আমাদের জীবনকে জড়িয়ে ধরেছে। তবু প্রেম, অভিমান টিকে আছে সবটুকু মধুরতা, স্নিগ্ধতা নিয়ে। তাই জীবন সুন্দর। সবকিছু ভুলে গিয়ে বাঁচার চেষ্টাও সুন্দর। যেনো মধুর তোমার শেষ যে না পাই।

(লেখার শিরোনামটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান থেকে নেয়া আর ছবি তুলেছে ছোটবোন মরিয়ম আক্তার।)

লেখকঃ কর্মসূচী পরিচালক

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© কুমিল্লা দর্পণ। সর্বসত্ব সংরক্ষিত
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web