রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কুমিল্লায় অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী রেজাউল গ্রেফতার স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে কুমিল্লায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান কুমিল্লায় গুলিভর্তি রিভলবারসহ ৯ মামলার আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব কুমিল্লায় দ্বিতীয় ধাপে ঘর পাবেন ১,২৯১টি ভূমিহীন পরিবার কুমিল্লায় সড়ক দুঘর্টনায় ৩ জনের মৃত্যু পিতার সাথে অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা হোমনায় জেলেদের মাঝে সেলাই মেশিন ও বেড় জাল বিতরণ কুমিল্লায় নকল বিটুমিন তৈরি কারখানায় অভিযান, মালিকসহ আটক ২ কুমিল্লায় সিনোভ্যাক ভ্যাকসিন পৌঁছেছে চৌদ্দগ্রামে ইয়াবাসহ নারী আটক এক বছর পরীক্ষা না দিলে বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে না-দীপু মনি পরিবহন থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে র‍্যাবের হাতে আটক ২ তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেন অতিরিক্ত সচিব কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে হত্যা চেষ্টার পর লুঙ্গি ড্যান্স করা মেহেদী গ্রেফতার মুরাদনগরে মাদক বিরোধী সমাবেশ

“আয়োজন”

– কণা সাহা।।

দূরের ঐ অন্তহীন আকাশটা জুড়ে প্রকৃতির লীলাখেলার নাচন চলে প্রতিনিয়ত। সেই নাচনে আন্দোলিত হয় মানবমন। পশ্চিমের ঐ কোনাটায় নীল আকাশের বুকে কিছুক্ষণ আগেও গ্রীষ্মের সোনালী সূর্য তার প্রখর তেজ ছড়িয়ে যেন চোখ রাঙাচ্ছিল।সেখানটাতেই এখন টুকরো টুকরো মেঘের আনাগোনা চলছে যেন!

 

পরমা ঘরকন্নার কাজে আত্মমগ্ন। ছোট্ট মেয়ে শ্রেয়া আদুরে আবদারসহ একটা ছাতা হাতে নিয়ে এসে বললো-মা, চল ছাদে যাই।এখন বাইরে বৃষ্টি হচ্ছে। আমি আর তুমি বৃষ্টিতে ভিজে লুকোচুরি খেলবো। পরমা দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে ভাবে জীবনের টানাপোড়েন তাকে নিয়েই কতোরকম লুকোচুরি খেলছে! মেয়ের নিষ্পাপ মুখের দিকে তাকিয়ে মন রক্ষার্থে নিজের হাতের কাজ গুছিয়ে মা-মেয়ে মিলে ছাদে যায় বৃষ্টিতে ভিজবে বলে৷ ছাদে উঠে পরমা কতক্ষণ আনমনা ছিলো। অনেক বছর বাদে বৃষ্টিতে ভিজে ওর স্কুল জীবনের দিনগুলো মনে পড়ে গেল। স্কুল ছুটির শেষে বান্ধবীদের সাথে দল বেঁধে, স্কুলব্যাগ দিয়ে মাথা ঢেকে বৃষ্টিকে আড়াল করার বৃথা চেষ্টায় নিমগ্ন থেকে বাড়ি ফেরার সেই দিনগুলো! কতো স্বচ্ছ ও সরল ছিলো সেই দিনযাপন।

 

মা হয়ে এতো কঠোর হলো কেমন করে সে! মেয়ে জল দিয়ে খেললে সে আঁতকে ওঠে, বৃষ্টিতে ভিজতে দেয় না যদি ঠান্ডা লেগে যায় এই ভয়ে। সেই মেয়ে আজ আয়োজনে মেতেছে মাকে নিয়ে বৃষ্টিতে ভিজবে বলে। টুপটাপ বৃষ্টি ঝরছিলো। পরমার না বলা অনেক বানীর অশ্রুবিন্দুগুলো ঝরা বৃষ্টিতে ধুয়ে যাচ্ছিলো৷ হঠাৎ দমকা বাতাসে শ্রেয়ার হাতের ছাতাটা দূরে উড়ে চলে যায়। সে কাঁদতে থাকে উড়ে যাওয়া ছাতার পানে চেয়ে । কিছুক্ষণ পর মেয়ে তাগাদা দিলো -চল মা, বৃষ্টিতে ভিজে লুকোচুরি খেলি। এমন সময় বৃষ্টিও থেমে এলো। আকাশেও মেঘের আনাগোনা লাপাত্তা। মৃদু হাওয়ায় মেঘ সরে গিয়ে গগনে দেখা দিলো দিবাকরের আধিপত্য। বৃষ্টিতে ভেজার আয়োজন ভেস্তে যাওয়ায় শ্রেয়া কাঁদতে লাগলো৷ পরমা মেয়ের মাথায় গভীর মমতায় হাত বুলিয়ে দিলো। মনে মনে ভাবলো জীবনে চলার পথে কত ভাবেই না কত আয়োজন স্থবির হয়ে যায় !

 

পৃথিবীব্যাপী মহামারী করোনা চলছে। স্বাস্হ্যবিধি মানা ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার ক্ষেত্রে বিভিন্ন পর্যায়ের অনিয়ম পরিলক্ষিত হচ্ছে। কাল ইদ। স্বজনদের সাথে সময় কাটানোর অপেক্ষায় মরিয়া হয়ে উঠেছে খেটে খাওয়া মানুষগুলো।

 

আদিল ঢাকায় চাকুরি করে। বাড়িতে বাবা-মা-স্ত্রী আর ছোট্ট শিশুপুত্র অপেক্ষমান।নারীর টানে লকডাউনের চরম বিপর্যয়ে পায়ে হেটে রওনা দেয় সে। হাজার হাজার মানুষের ঢলে সেও সফরসঙ্গী। ছুটি কাটাতে, প্রিয় মুখগুলোর তরে স্বপ্ন নিয়ে বাড়ি ফেরা……। কোথা থেকে কি হয়ে গেলো? তার সব আয়োজনই নিষ্পেষিত হলো। জীবনের আয়োজন থেমে গেলো চিরতরে!

আদিলের বাড়িতে উৎসবের আবহ। বাবা ভালো বাজার এনেছেন, কতোদিন পর খোকা বাড়ি ফিরছে! মা তার ছেলের শুভকামনায় প্রার্থনারত। স্ত্রী পরম যত্নে ঘর গুছিয়ে নানা পদ রান্নায় ব্যস্ত। ছোট্ট ছেলেটা বারবার উঠোন পেরিয়ে বাগানে দাঁড়িয়ে দূর রাস্তার পানে তাকিয়ে অপেক্ষারত। কখন বাবা ফিরবে? উৎসবের আয়োজনে বাড়ির প্রাঙ্গণ মুখরিত। হঠাৎ একটি অচেনা নাম্বার থেকে ফোন কল এলো…….।

 

উঠোন জুড়ে কান্নার রোল। এ কেমন অপেক্ষা! স্বপ্ন কে যা কান্নার জলে ভাসিয়ে দেয়? সঙ্গীহারা করে দেয় পথ চেয়ে থাকা পরমাত্মীয়দের? নিস্তেজ আদিলের পাশেই ছিল একটা ব্যাগ যাতে ছিল বাড়ির সকলের জন্য নতুন পোশাক আর ছেলের জন্য একটা খেলনা লাল রঙের গাড়ি। স্বজন হারানোর বেদন কেমন করে বয়ে চলবে এই পরিবারের মানুষগুলো? ওদের সব আয়োজন যে বিষন্ন-বেদনে রূপান্তরিত হল।

 

আমরা প্রত্যেকে প্রতিনিয়ত বহুবিধ আয়োজনে নিজেদেরকে নিয়োজিত রাখি। কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা যেন জীবনের আয়োজন কে স্থবির করে না দেয় -এই হোক প্রার্থনা। কান্না হাসির দোলাচলে জীবন গড়িয়ে চলে। জীবন গতিশীল। তবুও জীবনের আয়োজন গুলো যেন কখনো থেমে না যায়। তাই স্বল্প পরিসরের ছোট্ট আয়োজনগুলোও যেন প্রেরণা শক্তিকে উজ্জীবিত করে। জাগিয়ে রাখে বেঁচে থাকার প্রয়াস কে।

লেখকঃ কবি ও প্রাবন্ধিক।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© কুমিল্লা দর্পণ। সর্বসত্ব সংরক্ষিত
ডিজাইন ও ডেভেলপে Host R Web